Khairul Islamইসলামি লেকচার

যুবক, তাওবা করার সময় এখনই

গুনাহ করার পর আল্লাহ কত সজুগ দেন আল্লাহ, বায়হাকির মধ্যে এসেছে যে রাসুল (সা.) বলেন,  একজন ব্যাক্তি যখন গুনাহ করে অর্থাৎ আমরা যখন গুনাহ করি, তখন বাম কাঁধের ফেরশতা ৬ সময় {৬ সময় আমরা ধরে নিতে পারি এখন ৬ ঘণ্টা } কলমটা উঠিয়ে রাখে অর্থাৎ ৬ ঘণ্টা কলমটা উঠিয়ে রাখে। ৬ সময় বা ৬ ঘণ্টা এর ভিতরে বান্দা যদি আল্লাহ নিকট তাওবা করে তখন গুনাহটা আর লিখে না, যদি ৬ সময় বা ৬ ঘণ্টার ভিতরে যদি তাওবা করে তখন কি হবে?

তখন বাম কাঁধের ফেরেশতা মাত্র একটা গুনাহ লিখে রাখে, 

তিরমিজি শরীফে এসেছে রাসুল সা. বলেন , নিশ্চয়ই আল্লাহু সুবহানা তায়ালা তার বান্দার তাওবা কবুল করেন মৃত্যুর ঘর ঘরা অর্থাৎ মৃত্যুর আলামত আশার আগ পর্যন্ত। 

………………..

আজকে আমার আপনার সামনে কত যবুক মারা যাচ্ছে, কত দুর্ঘটনায় ঘটছে, পত্রিকার পাতাটা খুলে দেখেন তো, শত শত লোক দৈনিক দুর্ঘটনায় মারা যাচ্ছে, যাদের একটা রঙিন স্বপ্ন নিয়ে সে সকাল বেলা ঘর থেকে বের হয়েছে, খবর এর হেডলাইন গুলু পড়লে দেখা যায়, কত মানুষ কত স্বপ্ন নিয়ে এগোচ্ছিল কিন্তু আজকে তার দিন এইখানেই শেষ হয়ে গেল, তারও কিন্তু ইচ্ছে ছিল কালকে থেকে নামাজ পড়ব কিন্তু সে হয়তবা এই সজুগটা আর পায়নাই। তো এই সময়টা যে আমরা পাব তার গ্যারান্টি কে দিব।

আর সূরা মায়েদাহ এর ১৮ নং আয়াতে বলা হয়েছে। 
আর এমন লোকদের জন্য কোন ক্ষমা নেই, যারা মন্দ কাজ করতেই থাকে, এমন কি যখন তাদের কারো মাথার উপর মৃত্যু উপস্থিত হয়, তখন বলতে থাকেঃ আমি এখন তওবা করছি। আর তওবা নেই তাদের জন্য, যারা কুফরী অবস্থায় মৃত্যুবরণ করে। আমি তাদের জন্য যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি প্রস্তুত করে রেখেছি।

 

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close