Mufti Kazi Ibrahimইসলামি লেকচার

কবিরা গুনাহকারী কি চিরস্থায়ী জাহান্নামী?

কবিরা গুনাহকারী কি চিরস্থায়ী জাহান্নামী?
Mufti Kazi Ibrahim

কবিরাগুনাহ কারি যদি তাওবা বিহীন মারা যায় তাহলে সে চিরস্থায়ী জাহান্নামী হবে কি না?

এ ব্যাপারে একবারে দিবালোকের মত দালিলিক এবং প্রামান্য জবাব হল না। কবিরা গুনাহ কারী মুসলিম যাকে ধর্মীয় ক্ষেত্রে ফাসেক বলা হয়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে যে ধর্মকে মানে নেই, এই ব্যক্তি তওবা হীন ভাবে মরলে কখনোই চিরস্থায়ী জাহান্নামী হবে না – সর্ব সম্মত শক্তিশালী অভিমত এবং কুরআন এবং সুন্নাহ থেকে ফিল্টারিং করে এই মত,

যে কবিরা গুনাহকারী চিরস্থায়ী জাহান্নামী হবে না।

যারা আহলে সুন্নাহ ওয়াল জামাত থেকে বিচ্যুত, তাদের রায় হল একবার জাহান্নামে পড়লে আর বের হবে না, এটা তারা মত দিয়েছে। এটা তাদের মত যাদের বিরুদ্ধে আলী (রা.) যুদ্ধ করেছেন। এটা ভ্রান্ত এবং ভূল।

নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের অসংখ্য হাদিস রয়েছে, যে কবিরা গুনাহ কারী মুসলিম জাহান্নামে পড়লে সে জাহান্নাম থেকে মুক্তি পাবে এবং কুরআনের মধ্যেও এই ব্যাপারটি সমর্থিত রয়েছে, যেমন সূরা নিসার ৪৮ নং আয়াতে,

إِنَّ اللَّهَ لَا يَغْفِرُ أَن يُشْرَكَ بِهِ وَيَغْفِرُ مَا دُونَ ذَٰلِكَ لِمَن يَشَاءُ ۚ وَمَن يُشْرِكْ بِاللَّهِ فَقَدِ افْتَرَىٰ إِثْمًا عَظِيمًا

নিশ্চয় আল্লাহ তাঁর সাথে শরীক করাকে ক্ষমা করেন না। এছাড়া অন্যান্য অপরাধ যাকে ইচ্ছে ক্ষমা করেন। আর যে-ই আল্লাহর সাথে শরীক করে, সে এক মহাপাপ রটনা করে।

Surely Allah does not forgive that anything should be associated with Him, and forgives what is besides that to whomsoever He pleases; and whoever associates anything with Allah, he devises indeed a great sin.

একটা আয়াত বুঝলেই ক্লিয়ার হয়ে যাবে, যারা কবিরা গুনাহ কারী মুসলিমকে জাহান্নামী ভাবেন, তাদের এই একটি আয়াত গবেষণা করলেই ভ্রান্তিটা দূর হয়ে যেতে পারে। আল্লাহ্‌ যেন তাদের তাওফিক দান করেন।

আল্লাহ্‌ ক্ষমা করবে না তার সাথে শিরিক করাকে। এই গুলা আল্লাহ্‌ ক্ষমা করবেন না। আচ্ছা শিরিক এর নিচের গুনাহ গুলা কি, যত কবিরা সব শিরিক এর নিচের ষ্টেজ। শিরিক এর নিচে যত পাপ আছে সে চুরি করা ডাকাতি করা যেনা করা, খুন করা ইত্যাদি যত কবিরা গুনাহ। এই গুলাহ সব শিরিক এর নিচের গুনাহ। আল্লাহ্‌ বলছেন, শিরিক এর নিচে যত কবিরা গুনাহ আছে মহাপাপ আছে সেই যত বড় মহাপাপই হোক না কেন খুন খারাপি হোক না কেন, যিনা ভ্যাবিচার হোক না কেন, সুদ খুরি ঘোষ খুরি হোক না কেন, যত কিছুই হোক না কেন শিরিক এর নিচে যতক্ষন আল্লাহ্‌ তায়ালা সেটা ক্ষমা করবেন। যাকে তিনি চাইবেন

জাহান্নামে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রাপ্ত আসামী হল কাফের, মুনাফীক, মুশরীক, ফেরাউন, নমরূদ ইত্যাদি ইত্যাদি।
এরা হচ্ছে যাবজ্জীবন কারাদন্ড আসামী, এদের মুক্তি নাই। কিন্তু যারা মুমিন লা ইলাহা ইল্লাহ বলা মুমিন কিন্তু জাহান্নামের জেলখানায় পড়েছে এদের মুক্তি অবশ্যই যে কোন সময় হবেই। আল্লাহ্‌ তায়ালা কখনোই কোন মুমিন কেই লা ইলাহা ইল্লাহ বলা মানুষকেই চিরস্থায়ী জাহান্নামে রাখবেন না, তিনিতো তার ইজ্জতের কসম করে বলেছেন।

সম্পূর্ণ ভিডিও দেখবেন, বিস্তারিত জানার জন্য

Tags
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close